মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে

সমাজসেবা অধিদফতর সরকারের অন্যান্য জাতি গঠনমূলক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যেঅন্যতম। ১৯৫৫ সালে দেশে সমাজকল্যাণ কার্যক্রমশুরু হলেও ১৯৬১সালে সমাজসেবা পরিদফতরের সৃষ্টিহয়।ষাটের দশকের সৃষ্টিকৃত পরিদফতরটিই আজ সমাজসেবা অধিদফতরে উন্নীতহয়েছে।

 

     এ অধিদফতরের কার্যক্রম প্রথম দিকে ছিল শহরভিত্তিক এবং সেবামূলক।সময়ের প্রেক্ষাপটে বর্তমানেএ অধিদফতরের কার্যক্রমদেশব্যাপী তৃণমূলপর্যায়ে বিস্তৃতিলাভ করেছে।সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়াধীন সমাজসেবা অধিদফতর দেশেরদুস্থ, অবহেলিত, পশ্চাৎপদ, দরিদ্র, এতিম, অটিস্টিকও প্রতিবন্ধীএবং সমাজের অনগ্রসর মানুষেরকল্যাণ ওউন্নয়নেরক্ষেত্রে ব্যাপকও বহুমুখী কর্মসূচি নিয়ে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী সুদৃঢ়করণের লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

     গণপ্রজাতন্ত্রীবাংলাদেশেরসংবিধানে১৫(ঘ) অনুচেছদেরআলোকেদেশেরবিভিন্নঅনগ্রসরশ্রেণিরজন্যসাংবিধানিকঅঙ্গীকারপূরণেরলক্ষ্যেসরকারেরঅভিপ্রায়বাস্তবায়নেগুরুত্বপূর্ণভূমিকাপালনকরারক্ষেত্রেএঅধিদফতরপথিকৃৎহিসেবেস্বীকৃত।বয়স্কভাতা, বিধবাওস্বামীপরিত্যক্তাদুস্থমহিলাভাতা, অসচ্ছলপ্রতিবন্ধীব্যক্তিদেরভাতা, প্রতিবন্ধীশিক্ষার্থীদেরজন্যশিক্ষাউপবৃত্তি, মুক্তিযোদ্ধাসম্মানীভাতা, প্রাকৃতিকদুর্যোগওঝুঁকিমোকাবেলাকর্মসূচিইত্যাদিপ্রবর্তনেরক্ষেত্রেএঅধিদফতরেরভূমিকাদেশেবিদেশেব্যাপকভাবেসমাদৃত।

এঅধিদফতরেরউল্লেখযোগ্যসংখ্যকউন্নয়নপ্রকল্পওকর্মসূচিবাস্তবায়নকরেলক্ষ্যভুক্তজনগোষ্ঠীরজন্যসেবারহাতসম্প্রসারিতকরছেএবংস্থাপনকরছেসরকারি-বেসরকারিঅংশীদারিত্বের (বেসরকারিউদ্যোগেগৃহীতপ্রকল্পেসীমিতআকারেসরকারিসহায়তা) অনুপমদৃষ্টান্ত।জাতীয়এবংআন্তর্জাতিকভাবেস্বীকৃতবিভিন্নদিবসওবছরউদযাপনেরমাধ্যমেএডভোকেসিকার্যক্রমপরিচালনায়এঅধিদফতরেররয়েছেস্বার্থকপ্রয়াস।

 

সমাজদর্শনএবংউন্নয়নকৌশলেরপরিপ্রেক্ষিতেএবিশালকর্মযজ্ঞেনিয়োজিতসমাজকর্মীদেরউৎসাহিতকরারলক্ষ্যে১৯৯৯সালেসমাজসেবাভবনউদ্বোধনলগ্নেগণপ্রজাতন্ত্রীবাংলাদেশসরকারেরমাননীয়প্রধানমন্ত্রী২জানুয়ারিকে ‘জাতীয়সমাজসেবাদিবস’ ঘোষণাকরেন।৪জুন২০১২তারিখেরমন্ত্রিসভাবৈঠকেজানুয়ারিমাসের২তারিখকে ‘জাতীয়সমাজসেবাদিবস’ ঘোষণাপূর্বকদিবসটিকে ‘খ’ ক্যাটাগরিহিসেবেতালিকাভুক্তকরাহয়।এদিবসটিউদযাপনেরমাধ্যমেসমাজসেবার  কর্মসূচিতেএসেছেনতুনগতিওপ্রাণেরসঞ্চারএবংসমাজকর্মীগণহয়েছেউজ্জীবিত। 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter